মঙ্গলবার, ১৮ জানুয়ারী ২০২২, ০১:৩০ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
শিরোনামঃ
নোটিশঃ
চট্টগ্রাম বিভাগে বিভিন্ন জেলায় প্রতিনিধি আবশ্যক। যারা ইচ্ছুক, তারা আমাদের নিউজ পোর্টালে যোগাযোগ করবেন। যোগাযোগ 01715247336.

বেড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের এম্বুলেন্স ড্রাইভার আঙ্গুল ফুলে কলাগাছ

প্রতিবেদকের নাম / ৬২ শেয়ার হয়েছে
নিউজ আপঃ রবিবার, ২৫ অক্টোবর, ২০২০, ৪:০০ অপরাহ্ন

ব্যুরো  প্রধানঃ
গ্রামে বেড়ে ওঠা ছেলেটি অন্যের বাড়িতে থাকতো। পরিবারের দারিদ্র্যতার কারনে তেমন লিখাপড়া জোটেনি ভাগ্যে। রোজগারের জন্য অল্প বয়সেই তাকে নেমে পড়তে হয় কাজে। ছোটবেলা কাটে তার ট্রাকের হেলপারি করে। বেড়ালের ভাগ্যে যেমন সিকে ছেড়ে, তেমনই অল্প শিক্ষিত সেই ছেলেটির ভাগ্য যায় বদলে। ঠিক আঙ্গুল ফুলে কলাগাছ বনেযাওয়ার মতো।  এক সময়ে নুন আনতে পানতা ফুরানো ট্রাকের হেলপার আলিম (৪৫)।
সচিবের বাড়ির কাজের মেয়েকে বিয়ে করে বদলে যায় তার জীবন। কোন মতে  ৮ম শ্রেণী পাশ সার্টিফিকেট জোগাড় করে, পেয়ে যান চাকরি। হয়ে যান সরকারি হাসপাতালের এম্বুলেন্স ড্রাইভার। বর্তমানে তিনি পাবনার বেড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এম্বুলেন্স ড্রাইভার হিসেবে কর্মরত আছেন। আলিমের বাড়ি পাবনা জেলার সুজানগর থানার দাড়িয়াপুর গ্রামে। সংসার জীবনে তিনি দুই সন্তানের জনক। মাত্র ১৭ বছরের চাকরি জীবনে আলিম তার ছেলে-মেয়েকে পড়িয়েছেন নামি দামি কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ে।
অনুসন্ধানে জানা যায়,বর্তমানে ড্রাইভার আলিমের কাশিনাথপুর সদরে ৫তলা বিশিষ্ট একটি ভবন নির্মানাধীন চলছে। এছাড়াও তিনি প্রতি শতক এক লক্ষ টাকা মূল্যে ৭-৮ বিঘা জমি ক্রয় করেছে। আরও রয়েছে একটি বড় ১০চাকার ট্রাক (লরি), মাটিকাটার যন্র গাড়ি(ভেকু)। আলিম ড্রাইভার বেড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এর এক কার্মচারীর সাথে শেয়ারে নকিব উদ্দিন হাসপাতালের একটি পুরাতন এম্বুলেন্স ক্রয় করেন।  সম্প্রতি হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে আসা রোগীর লোকজন বলেন, হাসপাতালের এম্বুলেন্স ড্রাইভার কে জরুরী মূহুর্তে কল করে পাওয়া যায় না। কল রিসিভ না করে মোবাইল বন্ধ করে রাখে। এতে করে বাধ্য হয়ে বেশি টাকা ভাড়া দিয়ে প্রাইভেট এম্বুলেন্স নিয়ে যেতে হয় পাবনা সদর হাসপাতালে।
বিশ্বস্ত সুত্রে জানা যায়,তিনি স্থানীয় প্রভাবশালীদের যোগসাজসে প্রাইভেট এম্বুলেন্স হাসপাতাল চত্ত্বরে রাখেন এবং হাসপাতালে থাকা সত্ত্বেও মোবাইল বন্ধ রাখেন কারন প্রতিটি এম্বুলেন্স থেকে মোটা অঙ্কের কমিশন নেন। এ বিষয়ে জানতে চাইলে বেড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ সরদার মোহাম্মদ মিলন মাহমুদ বলেন, আমি শুনেছি ও জানি আলিমের সম্পদের বিষয় প্রায় ঠিক । সে কোন কমান্ড মানে না  নিজের মন মত চলে । আলিম একজন এম্বুলেন্স ড্রাইভার কিন্তু সে রোগী না নিয়ে বাহিরে ভাড়া খাটায়।  তবে মুঠো ফোনে জানতে চাইলে আলিম তার বিরুদ্ধে সকল তথ্য মিথ্যা বলে দাবি করেন।
বিস্তারিত আরও পরবর্তী পর্বে প্রকাশ করা হবে।


এই বিভাগের আরও খবর....

Address

87 Middle Rajashon, Savar,Dhaka-1340

+8802-7746644, +8801774945450

EMAIL newsalltime27@gmail.com

এক ক্লিকে বিভাগের খবর