সোমবার, ২৯ নভেম্বর ২০২১, ১০:৫৯ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
শিরোনামঃ
কলাপাড়ায় সালিশ বৈঠকে দু’পক্ষের  সংঘর্ষ তদন্ত কমিটি গঠন ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগ ধান কুড়ানি শিশু-কিশোররা খুঁজে  বেড়াচ্ছে ইঁদুরের গর্ত কলাপাড়ায় তিন ইউপি নির্বাচনে এক নারীসহ ১৬ জন চেয়ারম্যান প্রার্থীর মনোনয়ন পত্র দাখিল কলাপাড়ায় খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি ও চিকিৎসার দাবিতে বিক্ষোভ সমাবেশ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ‘গ্রাম হবে শহর’ এই স্বপ্ন বাস্তবায়নের অগ্রযাত্রায় নেতৃত্ব দিচ্ছেন: যুবলীগ নেতা সোহাগ কলাপাড়ায় তৃণমূলের ভোটে শীর্ষে থাকা চেয়ারম্যান প্রার্থীর পক্ষে সংবাদ সম্মেলন কুয়াকাটায় কাল শুরু শত বছরের ঐতিহ্যের রাস পূজা উৎসব কলাপাড়ায় ট্রাকের ধাক্কায় মটোরসাইকেল আরোহীর মৃত্যু কলাপাড়ায় জ্বালানী তেল ও নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্যের উর্ধ্বগতির প্রতিবাদে  বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ
নোটিশঃ
চট্টগ্রাম বিভাগে বিভিন্ন জেলায় প্রতিনিধি আবশ্যক। যারা ইচ্ছুক, তারা আমাদের নিউজ পোর্টালে যোগাযোগ করবেন। যোগাযোগ 01715247336.

করোনার ধকল কাটিয়ে ক্ষেত থেকে আগাম  তরমুজ বিক্রি করে লাভবান কৃষকরা।

মো.ফরিদ উদ্দিন বিপু,কলাপাড়া(পটুয়াখালী)প্রতিনিধি / ১১৯ শেয়ার হয়েছে
নিউজ আপঃ বুধবার, ৩ মার্চ, ২০২১, ১১:২১ পূর্বাহ্ন

কুয়াকাটাসহ কলাপাড়া সমুদ্র উপকূলীয় এলাকার বিভিন্ন ইউনিয়নে আগাম তরমুজ চাষে বাম্পার ফলন হয়েছে। আর এতে লাভবান কৃষকরা। চড়া দামে বিক্রি করতে পরে খুশি কৃষকরা। কৃষকরা ক্ষেত থেকে তরমুজ তুলে পাইকারী ও খুচরা বাজারে বিক্রি শুরু করেছেন। পর্যটন নগরী কুয়াকাটাসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে বাজারজাত করা হচ্ছে এসব রসালো মিষ্টি তরমুজ। দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে পাইকাররা এসে এসব তরমুজ কিনে নিয়ে যাচ্ছে। আবার কেউ কেউ কৃষকের উৎপাদিত তরমুজ ক্ষেত অগ্রিম ক্রয় করা শুরু করেছে। কুয়াকাটা সমুদ্র উপকূলের তরমুজ রসালো মিষ্টি ও সু-স্বাদু হওয়ায় এর চাহিদাও রয়েছে প্রচুর। এসব তরমুজ স্থানীয় বাজারেও চড়া দামে বিক্রি হচ্ছে।

সরেজমিনে দেখা গেছে, কুয়াকাটা পৌর এলাকাসহ পার্শ্ববর্তী লতাচাপলী ইউনিয়নের নয়াপাড়া এলাকা জুড়ে তরমুজের ক্ষেত। কৃষকরা কেউ কেউ তরমুজ গাছের পরিচর্যা করছেন তরমুজ বড় করতে। আবার কোন কোন কৃষক আগাম চাষ করায় তাদের ক্ষেতে আগাম তরমুজ পরিপক্ক হয়েছে। পরিপক্ক এসব তরমুজ তুলে আগাম বিক্রি করে লাভবান হয়েছে। আগাম ফলনকৃত তরমুজ পাইকাররা দেশের বিভিন্ন প্রান্তে ট্রাক ও পিকআপ ভরে নিয়ে যাচ্ছে প্রতিদিন।
নয়াপাড়ার চাষি মো. মনির হাওলাদার বলেন, প্রায় ৪মাস আগে ১৫ একর জমিতে তরমুজ চাষ শুরু করেন। কঠোর পরিশ্রম করার পরে ক্ষেতে বাম্পার পলন হয়েছে। তিনি আরো বলেন, নিয়মিত সার দেয়া, নিড়ানী দিয়ে ক্ষেত পরিষ্কার করার পাশাপাশি কৃষি কর্মকর্তাদের সাথে নিয়মিত যোগাযোগ রাখছি। আমার পুরো ক্ষেতের তরমুজ ৩লাখ টাকায় বিক্রি করে দিয়েছি।
তুলাতলী গ্রামের চাষি মো. রাজ্জাক মুসল্লী বলেন, গত বছর করোনায় আমার অনেক টাকা ক্ষতি হয়েছে । এবছর আগাম তরমুজ চাষে ভালো ফলন হয়েছে। আড়াই একর জমিতে তরমুজ চাষ করেছেন তিনি। এতে তার খরচ হয়েছে প্রায় দুই লাখ টাকা। তরমুজ বিক্রি করে তার প্রায় ৩লাখ টাকা লাভ হয়েছে। চাষিরা জানান, আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে হেক্টর প্রতি জমিতে তরমুজ চাষে দেড় লাখ টাকা লাভ হয়।
মহিপুর বন্দরের তরমুজ ব্যবসায়ী মো. কালাম বলেন, গত বছর করোনাকালীন তরমুজ বাজারে বিক্রি করতে পারেননি তিনি। এবারে তরমুজের ফলন ভালো হয়েছে। দামও চড়া। তারা চাষিদের কাছ থেকে গড়ে প্রতিটি তরমুজ ২’শ থেকে আড়াইশ টাকায় ক্রয় করছেন। স্থানীয় বাজারে তা গড়ে ৩০০ টাকায় বিক্রি করছেন।
কলাপাড়া উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা আবদুল মন্নান বলেন, কুয়াকাটা,লতাচাপলি. মহিপুর, নীলগঞ্জ ইউনিয়নসহ এ উপজেলায় ৩হাজার হেক্টর জমিতে তরমুজ চাষ হচ্ছে। আমরা সার্বক্ষনিক চাষিদের পরামর্শ দিয়ে থাকি। এবারে বাম্পার ফলন হচ্ছে। আগাম তরমুজ চাষীরা বেশি দামে বিক্রি করতে লাভবান হয়েছে। তিনি আরও বলেন,কৃষকরা যাতে ন্যায্য মুল্যে তরমুজ বিক্রি করতে পারে এজন্য কৃষকদের পাশে থেকে কৃষি কর্মকর্তারা সহযোগিতা করছেন।


এই বিভাগের আরও খবর....

Address

87 Middle Rajashon, Savar,Dhaka-1340

+8802-7746644, +8801774945450

EMAIL newsalltime27@gmail.com

এক ক্লিকে বিভাগের খবর