বুধবার, ২৭ অক্টোবর ২০২১, ১২:৪৪ অপরাহ্ন
নোটিশঃ
চট্টগ্রাম বিভাগে বিভিন্ন জেলায় প্রতিনিধি আবশ্যক। যারা ইচ্ছুক, তারা আমাদের নিউজ পোর্টালে যোগাযোগ করবেন। যোগাযোগ 01715247336.

পায়রা সমুদ্র বন্দরকে ঘিরে চলছে দক্ষিণাঞ্চলে উন্নয়নের কর্মযজ্ঞ. . . . . নৌ পরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালেদ মাহমুদ চৌধুরী।।

প্রতিবেদকের নাম / ১৩২ শেয়ার হয়েছে
নিউজ আপঃ রবিবার, ২৬ জুলাই, ২০২০, ১:১৭ অপরাহ্ন

মো.ফরিদ উদ্দিন বিপু,কলাপাড়া(পটুয়াখালী)প্রতিনিধি,২৬ জুলাই।

নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেছেন, আগামী এক বছরের মধ্যে দেশের অন্যতম ও তৃতীয় সমুদ্র বন্দর পায়রা পূর্ণাঙ্গ রুপে কার্যক্রম শুরু হবে। দক্ষিণাঞ্চলের বিভিন্ন ধরনের উন্নয়ন হচ্ছে পায়রা সমুদ্র বন্দরকে ঘিরে। এটি প্রধানন্ত্রীর একটি স্বপ্নের বাস্তবায়ন। বন্দরকে ঘিরে এখানে ১৩২০মেগাওয়াট পায়রা তাপ বিদ্যুত কেন্দ্র নির্মাণ হয়েছে। নৌঘাটি নির্মান কাজ চলছে। ফোরলেন সড়ক নির্মাণ করা হয়েছে। রাবনাবাদ চ্যানেলে পায়রা বন্দরের প্রথম টার্মিনাল এবং কন্টেইনার ইয়ার্ড নির্মাণের জন্য ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান সিলেকশন কাজ চলছে। তিনি বলেন, এই বন্দরের রাবনাবাদ চ্যানেল দিয়ে প্রতিদিন ২৫-৩০ হাজার মেট্রিকটন কয়লাবাহী জাহাজ চলাচল করছে। চলছে আনলোডিংএর কাজ চলছে। বর্তমানে এই চ্যানেলের নব্যতা ১৪ মিটার পর্যন্ত রয়েছে। এরপরও নব্যতা বাড়াতে ক্যাপিটাল ড্রেজিং করা হবে। প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, পায়রা বন্দরের শুরু থেকে এ পর্যন্ত ৭৩ টি জাহাজ পণ্য খালাশের মাধ্যমে ১৭৮ কোটি টাকার রাজস্ব আয় করেছে। এটি সূচনা মাত্র, এখান থেকে হাজার হাজার কোটি টাকা উপার্জন হবে। যে কোন বন্দরের চেয়ে এটি অধুনিক হবে। এ অঞ্চলই শুধু নয় বাংলাদেশে জন্য অর্থনৈতিতে গুরুত্বপূর্ন ভ‚মিকা রাখবে।

পায়রা বন্দর হয়েছে বলেই এখানে নৌ-বাহীনীর একটি বেইজ তৈরী করা হচ্ছে। পায়রা বন্দরকে ঘিরে শেখ হাসিনা ক্যান্টনমেন্ট হয়েছে। এখানে ইউনিভার্সিটিও হয়েছে।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের উত্তরে মন্ত্রী বলেন, নিন্দুকেরা যাই বলুক না কেন, সরকার দেশের স্বার্থ বিসর্জন দিয়ে কিছুই করবে না। সরকারের সকল ধরনের সক্ষমতা রয়েছে বলেই ৪০-৫০ হাজার কোটি টাকার বড় বড় প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে। দেশি-বিদেশি চক্র যতই ষড়যন্ত্র করুক দেশের উন্নয়নে সরকার কখনও পিছপা হয়নি। ভবিষ্যতেও হবে না। আগামি ২০২৩ সালে পায়রা বন্দরের প্রথম টার্মিনাল নির্মাণ কাজ সম্পন্ন হবে। রবিবার দুপুরে পায়রা বন্দর সম্মেলন কক্ষে সাংবাদিকদের সঙ্গে এক মতবিনিময় সভায় প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী এসব বলেছেন।

এসময় পটুয়াখালী-৪ আসনের সংসদ সদস্য ও প্রতিরক্ষা মন্ত্রনালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সদস্য আলহাজ্ব মুহিব্বুর রহমান,সংরক্ষিত সংসদ সদস্য কাজী কানিজ সুলতানা, সংরক্ষিত সংসদ সদস্য কাজী কানিজ সুলতানা হেলেন, পায়রা বন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান কমডোর হুমায়ুন কল্লোল, বিআই ডবিøউটিএর চেয়ারম্যান কমডোর গোলাম সাদেক,  পায়রা বন্দর পরিচালক (প্রশাসন) যুগ্ম সচিব মহিউদ্দিন আহম্মেদ, কলাপাড়ার ইউএনও আবু হাসনাত মোহাম্মদ শহিদুল ইসলাম। এর আগে প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী পায়রা বন্দর এলাকার উন্নয়ন কর্মকান্ড পরিদর্শণ করেন। তিনি রবিবার সকালে পায়রা বন্দরের প্রশাসনিক ভবনের পাশে একটি গাছের চারা রোপন করেন। তিনি নৌযানে রাবনাবাদ চ্যানেল এবং ফাস্ট টার্মিনাল নির্মান এলাকা পরিদর্শন করেছেন।


এই বিভাগের আরও খবর....

Address

87 Middle Rajashon, Savar,Dhaka-1340

+8802-7746644, +8801774945450

EMAIL newsalltime27@gmail.com

এক ক্লিকে বিভাগের খবর