মঙ্গলবার, ০৪ অক্টোবর ২০২২, ০৮:৪৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
শিরোনামঃ
রাজশাহীতে জঙ্গি হামলার আশঙ্কা নেই পুজামন্ডপে – রিয়াজ শাহরিয়ার জয়পুরহাটের কালাইয়ে  টেকসইকরণের প্রকল্পে রাস্তার কাজ হচ্ছে নিম্নমানের ইট দিয়ে বাঘায় ১২১ পিস ইয়াবাসহ একজন আটক রাজবাড়ীতে পৌরসভার কাউন্সিলর অস্ত্র ও গুলিসহ আটক বাংলাদেশ রেলওয়েতে অপ্রাপ্তবয়স্ক শিশু স্টাফ নিয়োগ স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের পর গলাকেটে হত্যা: প্রাইভেট শিক্ষকের তিনদিনের রিমান্ড টঙ্গীতে মালবাহী ট্রেনের বগি লাইনচ্যুত পাংশায় পুলিশের অভিযানে আগ্নেয়াস্ত্র সহ আটক ৪ যুবক রাজবাড়ী জেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রতীক বরাদ্দ, আ’লীগের প্রার্থী পেলেন তালগাছ সোনাইমুড়ী থানা পুলিশ কর্তৃক অভিযান পরিচালনা করে ৯০ বোতল ফেন্সিডিল সহ এক মাদক ব্যবসায়ী আটক
নোটিশঃ
দেশব্যাপি জেলা ও উপজেলা প্রতিনিধি আবশ্যক। নুন্যতম শিক্ষাগত যোগ্যতা এইচ এস সি/ সমমান পাস। যোগাযোগঃ 01715247336

চেয়ারম্যান আলীর বিরুদ্ধে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের ফসলি জমি দখলের অভিযোগ 

নিজস্ব প্রতিনিধি / ৩২১ বার দেখা হয়েছে
নিউজ আপঃ শুক্রবার, ২৩ এপ্রিল, ২০২১, ৪:২৮ অপরাহ্ন

রাজবাড়ীর কালুখালি উপজেলার সাওরাইল ইউনিয়নের লাড়িবাড়ি বাজার সংলগ্ন সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের ফসলি জমি রাতের অন্ধকারে জবরদখল করে নিলো ইউপি চেয়ারম্যান ও তার লোকজন।
শুক্রবার (২৩ এপ্রিল) ভোরবেলা সাওরাইল ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোঃ সহিদুল ইসলাম আলী ও তার অস্ত্রধারী  সন্ত্রাসী  বাহিনী অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে একই ইউনিয়নের লাড়িবাড়ি গ্রামের মঙ্গল বিশ্বাস এর চাষের জমি দখল  করে নেন।
ভুক্তভোগী মঙ্গল বিশ্বাস সাংবাদিকদের বলেন আমি পারিবারিক সূত্রে এই জমি খাই। তবে হঠাৎ গত কাল ভোর রাতে আলী চেয়ারম্যান ও তার শতাধিক অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী আমার জমিতে থাকা পাট সহ জমিতে চাষ দেয়। আমি ও আমার ছেলে বাধা দিলে অস্ত্রের ভয় দেখায় এবং আমার ছেলে তার মোবাইল দিয়ে ভিডিও করতে গেলে মোবাইল কেড়ে নেয়া হয়। পরে বাড়ি এসে কালুখালি থানার ওসির কাছে ফোনে জানালে তিনি অনিহা প্রকাশ করেন । পরে উপায় না পেয়ে ৯৯৯ এর কল দিলে পুলিশ ঘটনা স্থলে আসে এবং বলেন আপনারা কোন প্রকার মারামারি করবেন না। প্রয়োজনে আপনারা কালুখালি থানায় গিয়ে লিখিত  অভিযোগ দায়ের করেন। তবে আমি চেয়ারম্যান ও তার অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীদের ভয়ে লিখিত অভিযোগ দায়ের করতে পারছি না।
অভিযুক্ত  সাওরাইল ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সহিদুল ইসলাম আলীর বিরুদ্ধে জমি দখলের একাধিক  অভিযোগ  রয়েছে । যানা যায় তিনি সালিশের নামে মধ্যযুগীয় কায়দায় অত্যাচার করেন। কিছুদিন আগেও তিনি মধ্যযুগীয় কায়দায় শালিশের নামে অত্যাচার করায় হাজত খেটেছে। 
 
তবে অভিযোগের বিষয় জানার জন্য সাওরাইল ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সহিদুল ইসলাম আলীর সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে তার ফোন বন্ধ পাওয়া যায় । 
 
কালুখালি থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ মাসুদুর রহমানের সাথে অভিযোগের বিষয় জানতে চাইলে তিনি বলেন উক্ত বিষয়ে আমার কাছে কোন অভিযোগ আসে নাই । তবে অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


এই বিভাগের আরও খবর....
এক ক্লিকে বিভাগের খবর