রবিবার, ০২ অক্টোবর ২০২২, ১০:৪৩ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
শিরোনামঃ
বাঘায় ১২১ পিস ইয়াবাসহ একজন আটক রাজবাড়ীতে পৌরসভার কাউন্সিলর অস্ত্র ও গুলিসহ আটক বাংলাদেশ রেলওয়েতে অপ্রাপ্তবয়স্ক শিশু স্টাফ নিয়োগ স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের পর গলাকেটে হত্যা: প্রাইভেট শিক্ষকের তিনদিনের রিমান্ড টঙ্গীতে মালবাহী ট্রেনের বগি লাইনচ্যুত পাংশায় পুলিশের অভিযানে আগ্নেয়াস্ত্র সহ আটক ৪ যুবক রাজবাড়ী জেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রতীক বরাদ্দ, আ’লীগের প্রার্থী পেলেন তালগাছ সোনাইমুড়ী থানা পুলিশ কর্তৃক অভিযান পরিচালনা করে ৯০ বোতল ফেন্সিডিল সহ এক মাদক ব্যবসায়ী আটক নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে র‌্যাবের অভিযানে ৪টি দেশীয় তৈরী অস্ত্র সহ এক চিহ্নিত অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী গ্রেফতার নোয়াখালীর মাইজদীতে অষ্টম শ্রেণীর ছাত্রীকে ধর্ষণের পর গলা কেটে হত্যা
নোটিশঃ
দেশব্যাপি জেলা ও উপজেলা প্রতিনিধি আবশ্যক। নুন্যতম শিক্ষাগত যোগ্যতা এইচ এস সি/ সমমান পাস। যোগাযোগঃ 01715247336

মাদ্রাসার অভ্যন্তরে বিক্রি হচ্ছে তামাকজাত দ্রব্য

আবুল কালাম আজাদ নিজস্ব প্রতিনিধি / ১৪২ বার দেখা হয়েছে
নিউজ আপঃ বৃহস্পতিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী, ২০২১, ১:১৬ অপরাহ্ন

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের আশপাশে সিগারেট ও তামাকজাত দ্রব্য বিক্রি নিষিদ্ধ করা হয়েছে। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোকে তামাক ও মাদকদ্রব্য থেকে মুক্ত করতে পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। এরই অংশ হিসেবে দেশের মাধ্যমিক পর্যায়ের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এবং প্রতিষ্ঠানের পাশে ধূমপান ও তামাকজাত পণ্যের ব্যবহার, বিক্রি, প্রদর্শন ও বিজ্ঞাপন প্রচার বন্ধের নির্দেশ দিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। শিক্ষাঙ্গনে শিক্ষার পরিবেশ ও শিক্ষার্থীর স্বাস্থ্য সুরক্ষায় এই নির্দেশনা বাস্তবায়ন করতে শিক্ষাবোর্ড চেয়ারম্যান, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালককে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।
দেশে এই আইন প্রচলিত থাকলেও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে বা আশেপাশে ধূমপানসহ মাদকদ্রব্যের ব্যবহার বন্ধ হয়নি। এমনকি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের দেয়াল ঘেঁষে পান সিগারেটের দোকান গড়ে উঠেছে। এরি ধারাবাহিকতায় রাজবাড়ীর পাংশা উপজেলার মাছপাড়া ইউনিয়নের হলুদবাড়িয়া দাখিল মাদ্রাসার অভ্যন্তরে একটি ক্লাস রুম নিয়ে গড়ে উঠেছে মুদি ও কাঁচামাল জাতীয় পণ্যের দোকান। যেখানে মুদি ও সবজি জাতীয় পণ্যের পাশাপাশি বিক্রি হচ্ছে তামাকজাত দ্রব্য। আর দোকানটি গড়ে তুলেছে উক্ত মাদরাসার শিক্ষক নাসির (পিতা মালেক মল্লিক)। যিনি শিক্ষক হয়ে মাদরাসা সহ আশপাশের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের কোমলমতি শিক্ষার্থীদের হাতে তুলে দিচ্ছেন তামাকজাত দ্রব্য সিগারেট।
সাধারণ ভাবে যেকোনো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে শিক্ষার্থীদের সুবিধার জন্য একটি লাইব্রেরি কিংবা হালকা খাবারের দোকানের বিধান রয়েছে। কিন্তু সবজি কিংবা মুদি দোকান দেওয়ার ও সেখানে তামাকজাত দ্রব্য বিক্রি সম্পূর্ণভাবে আইন বহির্ভূত।
প্রসঙ্গত, দেশে ধূমপান বা তামাকজাত পণ্যের ব্যবহার নিয়ন্ত্রণে আইন রয়েছে। ২০১৩ সালে সংশোধিত ধূমপান ও তামাকজাত দ্রব্য ব্যবহার নিয়ন্ত্রণ আইনে বলা হয়েছে পাবলিক প্লেসে ধূমপান করলে অনধিক ৩০০ টাকা জরিমানা দিতে হবে। আর পাবলিক প্লেস বলতে আইনে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, সরকারি অফিস, আধা সরকারি অফিস, স্বায়ত্বশাসিত অফিস ও বেসরকারি অফিস, গ্রন্থাগার, লিফট, আচ্ছাদিত কর্মক্ষেত্র, হাসপাতাল ও ক্লিনিক ভবন, আদালত ভবন, বিমানবন্দর, সমুদ্রবন্দর, নৌ-বন্দর, রেলওয়ে স্টেশন, বাস টার্মিনাল, প্রেক্ষাগৃহ, প্রদর্শনী কেন্দ্র, থিয়েটার হল, বিপণি বিতান, চারদিকে দেয়াল দিয়ে আবদ্ধ রেস্টুরেন্ট, পাবলিক টয়লেট, শিশুপার্ক, মেলা বা পাবলিক পরিবহনে আরোহনের জন্য যাত্রীদের অপেক্ষার জন্য নির্দিষ্ট সারি, জনসাধারণ বা বিশেষ আদেশ দ্বারা সময় সময় ঘোষিত অন্য যেকোনও বা সব স্থানকে বোঝানো হয়েছে।
এব্যাপারে হলুদবাড়িয়া মাদরাসা সুপার মজিবর রহমানের সাথে কথা বলতে গেলে তিনি জানান, আমি মাদরাসায় একটি খাবারের ক্যান্টিন করতে বলেছিলাম। যদি সে এর বাইরে কিছু করে থাকে আমি সেটা আমলে নিয়ে দেখছি এবং বন্ধের ব্যবস্থা নিচ্ছি।
পাংশা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ আলীকে বিষয়টি জানানো হলে তিনি এর প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের উদ্যোগ নেবেন বলে জানান।


এই বিভাগের আরও খবর....
এক ক্লিকে বিভাগের খবর