বুধবার, ২২ মার্চ ২০২৩, ০২:১৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
শিরোনামঃ
উত্তরায় ২৫০ টি অবৈধ স্হাপনা বুলডোজার দিয়ে ভেঙ্গে গুড়িয়ে দিয়েছে রাজউক মিরপুরে ছিনতাইকারী চক্রের ৫ সদস্য গ্রেফতার: দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার রাজবাড়ীতে মাটির ট্রাকের চাপায় মোটরসাইকেল আরোহীর মৃত্যু বাংলাদেশ কোন অঙ্গরাজ্য নয় : মোমিন মেহেদী পাংশায় সেই শিক্ষকের বিরুদ্ধে অভিযোগের নেপথ্য নিয়ে প্রশ্ন অনিয়ম দুর্নীতির সংবাদ প্রকাশের জেরে সাংবাদিকের চরিত্রহনন করে প্রতিবাদের ইমেইলে বার্তায় হুমকি প্রদান বিএনপি যখন ক্ষমতায় ছিল দেশের কোন উন্নয়ন করে নাই তৈরি করেছে সন্ত্রাসী বাহিনী পাংশা সিদ্দিকিয়া মাদ্রাসার হিফজুল কুরআন শাখার উদ্বোধন ও পবিত্র কুরআনুল কারিমের ‘সবক’প্রদান অনুষ্ঠিত যার জাগা- জমি নাই সরকার থেকে একটা ঘর জাইগা দিয়ে ঠিকানা করে দিয়েছে আমাদের সরকার পাংশা উপজেলা তামাক নিয়ন্ত্রণ টাস্ফফোর্স কমিটির ত্রৈমাসিক সভা অনুষ্ঠিত
নোটিশঃ
দেশব্যাপি জেলা ও উপজেলা প্রতিনিধি আবশ্যক। নুন্যতম শিক্ষাগত যোগ্যতা এইচ এস সি/ সমমান পাস। যোগাযোগঃ 01715247336

মাধবপুরে এসিড সন্ত্রাসের শিকার দুই বোন

প্রতিবেদকের নাম / ৩৭৯
নিউজ আপঃ শুক্রবার, ২৫ জানুয়ারী, ২০১৯, ১:৫৮ অপরাহ্ন

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি : হবিগঞ্জের মাধবপুরে দুর্বৃত্তের ছুড়া এসিডে ঝলসে গেছে দুই বোন। বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত প্রায় ২টার দিকে ঘরের গ্রিল ভেঙ্গে ঘুমন্ত দু-বোনের উপর অজ্ঞাত দুর্বৃত্তরা এসিড ছুড়ে মারে। পরে পরিবারের লোকজন এগিয়ে এসে তাদেরকে উদ্ধার করে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্মরত ডাক্তার তাদের ঢাকা প্রেরণ করেন। খবর পেয়ে শুক্রবার (২৫ জানুয়ারি) দুপুরে পুলিশ ঘটনাস্থল পরির্দশন করেছে।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, মাধবপুর উপজেলার বাঘাসুরা গ্রামের এখলাছ মিয়ার মেয়ে হাবিবা আক্তারকে প্রায় ১০ মাস পূর্বে বিয়ে দেয়া হয় ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর উপজেলার সায়েক গ্রামের ছায়েদ আলীর ছেলে মুমিন মিয়ার সাথে। বিয়ের তিন মাস পরই হাবিবা তার শ^শুর বাড়ি ছেড়ে বাবার বাড়ি চলে আসেন। গত ১৫ দিন আগে পারিবারিকভাবে তাদের বিবাহ বিচ্ছেদ হয়।

বৃহস্পতিবার (২৪ জানুয়ারি) হাবিবা প্রতিদিনের ন্যায় রাতে খাবার শেষে ছোট চার বোনকে নিয়ে ঘুমিয়ে পড়েন। রাত প্রায় ২টার দিকে কে বা কারা ঘরের গ্রিল ভেঙ্গে তাদের উপর এসিড নিক্ষেপ করে পালিয়ে যায়। এ সময় দুর্বৃত্তের ছোড়া এসিডে হাবিবা আক্তার (২০) ও তার ছোট বোন স্থানীয় একটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৫ম শ্রেণির ছাত্রী আয়েশা আক্তার (১০) ঝলসে যায়।

তাদের শোর-চিৎকারে পরিবারের লোকজন এগিয়ে এসে তাৎক্ষণিক দু-বোনকে উদ্ধার করে হবিগঞ্জ জেলা সদর আধুনিক হাসপাতালে নিয়ে আসেন। পরে কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. সাইফুর রহমান সোহাগ তাদেরকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে প্রেরণ করেন।

জরুরী বিভাগে কর্মরত ডা. সাইফুর রহমান জানান, দু’বোনই এসিডে আক্রান্ত হয়েছেন। এর মধ্যে বড় বোন হাবিবা আক্তারের মুখের প্রায় ৭০ শতাংশ ঝলসে গেছে। তার অবস্থা আশংকাজনক। এছাড়াও ছোট বোন আয়েশার শরীরের বিভিন্নস্থানে এসিড পড়েছে। দু’জনকেই উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা প্রেরণ করা হয়েছে।

মাধবপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) চন্দন কুমার চক্রবর্তী জানান, দুর্বৃত্তদের গ্রেফতার করে দ্রুত আইনের আওতায় নিয়ে আসা হবে।


এই বিভাগের আরও খবর....
এক ক্লিকে বিভাগের খবর