বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৮:০৬ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
শিরোনামঃ
মানবাধিকার শীর্ষক আলোচনা সভা- ২০২৪ বিশ্বে দ্রব্যমূল্য কমলেও দুর্নীতির কারণে বাংলাদেশে বৃদ্ধির রেকর্ড কলাপাড়ায় হতদরিদ্রদের মাঝে ঢেউটিন ও চেক বিতরণ।। নোয়াখালী বেদে পল্লী হইতে দুই পেশাদার মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে জেলা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদ্প্তর কলাপাড়ায় জাতীয় বিজ্ঞান মেলা, ৮ম  বিজ্ঞান অলিম্পিয়াড পুরস্কার বিতরণী ও সমাপনী অনুষ্ঠান সকল সরকার সীমান্ত হত্যাকে প্রশ্রয় দিয়েছে : মোমিন মেহেদী সামাজিক ও আইনি বিষয়ক মানবাধিকার সংস্থার প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন-২০২৪ কুয়াকাটা হবে বিশ্বমানের পর্যটন কেন্দ্র- প্রতিমন্ত্রী মহিব রাজশাহীতে হামলা ও জমি দখলমুক্ত করার প্রতিবাদে দাবিতে সংবাদ সম্মেলন সামাজিক ও আইনি বিষয়ক মানবাধিকার সংস্থার কম্বল পেয়ে খুশি ৫০ টি পরিবার
নোটিশঃ
দেশব্যাপি জেলা ও উপজেলা প্রতিনিধি আবশ্যক। নুন্যতম শিক্ষাগত যোগ্যতা এইচ এস সি/ সমমান পাস। যোগাযোগঃ 01715247336

হাতিয়ায় গলায় ফাঁস লাগিয়ে গৃহবধুর আত্মহত্যা

মোঃ সাদ্দাম হোসেন সাহিদ স্টাফ রিপোর্টার, নোয়াখালী। / ১৩৪
নিউজ আপঃ বৃহস্পতিবার, ৬ এপ্রিল, ২০২৩, ৭:০২ অপরাহ্ন

বুধবার (৫ই এপ্রিল) দুপুর অনুমান ০১.০০ ঘটিকার সময় নোয়াখালীর হাতিয়া উপজেলায় মেঘনা আক্তার নামের এক গৃহবধু গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করে। ভিকটিম মেঘনা আক্তার (২৮) হাতিয়া উপজেলার ৯নং বুড়িরচর ইউনিয়ন জোড়খালী গ্রামের জনৈক মোঃ রিয়াজ উদ্দিনের স্ত্রী এবং একই এলাকার জনৈক মোঃ মাইন উদ্দিনের মেয়ে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গতকাল দুপুর আনুমানিক ০১.০০ ঘটিকার সময় ভিকটিম মেঘনা আক্তার পারিবারিক কলহের জেরে সকলের অগোচরে তাহার স্বামীর বসত ঘরের বারান্দার আড়ার সাথে লাইলন রশি দিয়া গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করে। পরিবারের লোকজন ভিকটিমকে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পেয়ে তাৎক্ষনিক হাতিয়া থানাধীন সাগরিয়া পুলিশ ফাঁড়িতে সংবাদ দিলে, সাগরিয়া পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই মিজানুর রহমান ঘটনাস্থলে পৌছে ভিকটিমের লাশ শনাক্ত করে ভিকটিমের মৃতদেহের সুরতহাল রিপোর্ট প্রস্তুত করেন। পরবর্তীতে লাশ ময়না তদন্তের জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করেন।

নোয়াখালীর দ্বীপ উপজেলা হাতিয়ায় এ যেন এক আত্মহত্যার প্রতিযোগিতা চলছে। বিগত বছরে এই উপজেলায় অন্যন্ত শতাধিক নারী-পুরষের আত্মহত্যা করেছে। এই আত্মহত্যার প্রবনতা যেন জাপানের আত্মহত্যার নাম করণ হেরিক্যানকেও হার মানিয়ে যাচ্ছে।এই বিষয়ে বিশেষজ্ঞদের মতে, দেশের চলমান অর্থ সংকটের বিরুপ প্রভাব সরাসরি পড়ছে হাতিয়া উপজেলার সাধারণ খেটে খাওয়া মানুষের উপর। অভাব অনটনে প্রতিনিয়ত পুড়ছে হাতিয়া উপজেলার সাধারণ মানুষের হৃদয়, তৈরী হচ্ছে পারিবারিক কলহের তীব্রতা বাড়ছে আত্মহত্যার ঘটনা। এছাড়াও এই উপজেলায় মানুষের মধ্যে শিক্ষার হার নুনতম থাকায় স্বাভাবিক জীবন যাত্রার বাহিরে এদের ব্যাক্তি জীবন নিয়ে চরম হতাশা আর বিরুপ চিন্তা-ভাবনার প্রভাব তীব্র আঁকার ধারণ করছে।এই উপজেলার মানুষের মধ্যে আত্মহত্যা প্রতিরোধী ক্যাম্পেইন এখন সময়ের দাবী। নাহয় জাপানের হেরিক্যানকেও হার মানাবে হাতিয়া আত্মহত্যার প্রবনতা।


এই বিভাগের আরও খবর....
এক ক্লিকে বিভাগের খবর